Urine Protein Test.

post-image

Urine এ প্রোটিন পাস করছে কিনা তা বেশ কয়েকটি টেস্টের মাধ্যমে জানা যায়। সেগুলো হলঃ

★ Urine routine examination বা Urine r/e

★Urine for Micro-albumin

★Urinary ACR (albumin-creatnine ratio) বা Urine PCR (protein-creatinine ratio)

★24 hour urine protein বা 24 hour UTP

ইউরিনে 0-30 mg প্রোটিন পাস করলে তা স্বাভাবিক,
30-300 mg হলে তা micro-albumin (অর্থাৎ কম প্রোটিন), 300 mg এর বেশি হলে তা macro-albumin (অর্থাৎ বেশি প্রোটিন)

একজন কিডনি রুগির জীবনে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন টেস্ট অর্থবহ হয়, সবসময় একই টেস্ট একই meaning নাও দিতে পারে।

★Urine r/e হল এমন একটি টেস্ট যেটা দিয়ে ইউরিনের মাধ্যমে একসাথে অনেক বিষয়ে ধারনা পাওয়া যায় যেমনঃ ডায়াবেটিস, জন্ডিস বা ইনফেকশন আছে কিনা। এই টেস্টে প্রোটিনের পরিমান trace বা 1+/2+/3+ এভাবে দেয়া থাকে। কিন্তু এই প্রোটিনটা হল Macro-protein অর্থাৎ বেশি পরিমানে প্রোটিন পাস করলে (300mg এর বেশি) তখন urine r/e তে প্রোটিন লিকটা trace বা 1+ হিসাবে ধরা পড়ে, প্রোটিন লিক কম হলে ধরা পড়বেনা।

★যাদের হাই ব্লাড প্রেসার বা ডায়াবেটিস বা পারিবারিক কিডনি রোগের ইতিহাস আছে তাদের জন্য অনেকক্ষেত্রেই urine r/e টেস্টে প্রোটিন লিক ধরা পড়তে অনেকদিন সময় পার হয়ে যায়। ততদিনে কিডনি ড্যামেজের পরিমান অনেক বেশি হয়ে তা পুরোপুরি ঠিক করার মত কোন উপায় থাকেনা। তাদের জন্য উপযুক্ত টেস্ট হল urine for micro-albumin. এই টেস্টে অল্প পরিমান (300mg এর কম) প্রোটিন লিক করলেও তা ধরা পড়ে এবং সময়মত মেডিসিন প্রেসক্রাইব করে কিডনির ক্ষতি আটকানো সম্ভব।

★kidney এর কাজ হল ইউরিনের মাধ্যমে ক্রিয়েটিনিন বের করা কিন্তু প্রোটিন বের হতে না দেয়া। একজন মানুষের কিডনি দিয়ে কি অনুপাতে ক্রিয়েটিনিন আর প্রোটিন বের হচ্ছে তার টেস্ট হল Urine ACR বা Urine PCR.

★24 hour UTP টেস্টের মাধ্যমে ২৪ ঘন্টায় ইউরিনে মোট কতটুকু প্রোটিন পাস করে তা জানা যায়। কিডনি রোগের বিভিন্ন স্টেজ নির্ধারণের জন্য এবং ট্রান্সপ্লান্টের পর এই টেস্ট এর কোন বিকল্প নাই।

এই ৪ ধরনের টেস্টের মধ্যে GOLD STANDARD হল 24 hour UTP টেস্ট। কারন বাকি সব টেস্টে মাত্র একবার ইউরিন স্যাম্পল দিয়ে করা হয়। সেই স্যাম্পলে বেশি প্রোটিন লিক করতে পারে, কম প্রোটিন লিক করতে পারে– আর এই বেশি/কম লিক স্বাভাবিক কারনেও হতে পারে।

মনে করেন একজন ট্রান্সপ্লান্ট করা ব্যাক্তির ইউরিন দিয়ে প্রোটিন লিক করে। কিন্তু তিনি UTP না করে শুধু urine r/e টেস্ট করেন। তিনি যে ইউরিন স্যাম্পল দিয়ে urine r/e করেন সেই স্যাম্পলে উল্লেখযোগ্য পরিমানে প্রোটিন পাস করলনা। তার রিপোর্ট কিন্তু নরমাল আসবে। কিন্তু তিনি 24 hour UTP করলে কখনোই অতিরিক্ত প্রোটিন পাস হওয়াটা মিস হবেনা।

এজন্য ট্রান্সপ্লান্টের পর বছরে অন্তত একবার হলেও 24 hour UTP টেস্ট করা উচিৎ, বছরে ২ বার করলে আরো ভাল। টেস্টের জন্য স্যাম্পল কালেক্ট করা সময়সাপেক্ষ। কিন্তু তারপরও প্রত্যেক ট্রান্সপ্লান্টের এই টেস্ট করা আবশ্যিক।

UTP টেস্ট করার স্পেসিফিক নিয়ম আছে। সেটা না মানলে সঠিক রিপোর্ট আসবেনা।

💥২৪ ঘন্টা ইউরিনারি টোটাল প্রোটিন সংগ্রহের পদ্ধতি.

ⒸBKPA

Caution:
BKPA is a voluntary social organization whose mission is to raise awareness, promote and share knowledge about kidney disease. BKPA does not provide any kind of medical advice directly or indirectly through social media or any other platform which should only be done by the nephrologist or registered doctor. This is prohibited to take any kind of medical treatment based on the information provided by BKPA.
সতর্কতাঃ
বিকেপিএ একটি স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন যার লক্ষ্য কিডনি রোগ সম্পর্কে সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধি,প্রচার এবং সতর্ক করা। বিকেপিএতে সামাজিক মাধ্যম অথবা অন্য কোন মাধ্যম ব্যবহার করে বা সরাসরি প্রত্যক্ষ / পরোক্ষভাবে কোনো প্রকার চিকিৎসা সংক্রান্ত সেবা বা পরামর্শ প্রদান করা হয় না যা শুধুমাত্র আপনার নেফ্রোলজিস্ট এবং রেজিস্টার্ড চিকিৎসকের এখতিয়ার।বিকেপিএ প্রদত্ত তথ্যের উপর ভিত্তি করে কোন প্রকার চিকিৎসা গ্রহণ নিষিদ্ধ।